শেয়ার
 
Comments

২০১৪-র সেপ্টেম্বর মাসে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অধিবেশনে ভাষণ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী সারা বিশ্বকে একজোট হয়ে ‘আন্তর্জাতিকযোগ দিবস’ পালনের আহ্বান জানান।এটি ছিল ভারতে ‘যোগ’-এর যে উজ্জ্বল ঐতিহ্য রয়েছে ,  তাকে তুলে ধরার উদ্যোগ। 



২০১৪-র ডিসেম্বর মাসে রাষ্ট্রসঙ্ঘ প্রধানমন্ত্রীর এই প্রস্তাব গ্রহণকরে এবং ১৭৭টি দেশ একযোগে ২১ জুনকে ‘আন্তর্জাতিক যোগ দিবস’ হিসাবে উদযাপনেরপ্রস্তাবকে সমর্থন করে। সারা বিশ্বের সবক’টি মহাদেশের ১৭৭টি দেশ এই প্রস্তাবকেসমর্থন জানায়।



২১ জুন-কে ‘আন্তর্জাতিক যোগ দিবস’ হিসাবে ঘোষণা করার ফলে সারা বিশ্বজুড়ে যোগাভ্যাসকে আরও বেশি জনপ্রিয় করে তোলা সম্ভব হবে। প্রধানমন্ত্রী স্বয়ংনিয়মিত যোগাভ্যাস করেন এবং তিনি ‘যোগ’-কে জ্ঞান, কর্ম ও ভক্তির এক বিস্ময়কর মিলনবলে বর্ণনা করেন। এর মাধ্যমে ‘রোগমুক্তি’ এবং ‘ভোগমুক্তি’ সম্ভব বলে তিনি মনেকরেন। প্রকৃতপক্ষে গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে তিনি বিশেষভাবে উৎসর্গীকৃত যোগবিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্বোধন করে যুবকদের যোগাভ্যাসকে আরও বেশি জনপ্রিয় করে তোলার উদ্যোগ নেন।

ডোনেশন
Explore More
আমাদের ‘চলতা হ্যায়’ মানসিকতা ছেড়ে ‘বদল সাকতা হ্যায়’ চিন্তায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

জনপ্রিয় ভাষণ

আমাদের ‘চলতা হ্যায়’ মানসিকতা ছেড়ে ‘বদল সাকতা হ্যায়’ চিন্তায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
Chandrayaan 2: Indian at heart and in spirit, PM Narendra Modi hails ISRO’s indigenously-developed mission

Media Coverage

Chandrayaan 2: Indian at heart and in spirit, PM Narendra Modi hails ISRO’s indigenously-developed mission
...

Nm on the go

Always be the first to hear from the PM. Get the App Now!
...
শেয়ার
 
Comments

৫ মে ২০১৭ তারিখ দক্ষিণ এশীয় সহযোগিতার একটি দৃঢ় অনুপ্রেরণা লাভ করার দিন হিসেবে ইতিহাসে খোদাই করা - ওই দিন দক্ষিণ এশিয়ায় স্যাটেলাইট সফলভাবে উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল, যেটা ভারত প্রতিশ্রুতি পূরণের দুই বছর আগে করেছে।

দক্ষিণ এশিয়া উপগ্রহের সাথে, দক্ষিণ এশীয় দেশগুলিও স্পেসে তাদের সহযোগিতায় প্রসারিত করেছে!

ইতিহাস সৃষ্টির সাক্ষীতে, ভারত, আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, ভুটান, মালদ্বীপ, নেপাল ও শ্রীলংকার নেতারা ভিডিও কনফারেন্সিং-এর মাধ্যমে এই অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

অনুষ্ঠানে ভাষণ দেওয়ার সময় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দক্ষিণ এশিয়ায় স্যাটেলাইটটি অর্জন করতে পারে এমন সম্ভাব্য চিত্র তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, প্রত্যন্ত এলাকায় উন্নততর শাসন, কার্যকর যোগাযোগ, উন্নততর ব্যাঙ্কিং এবং শিক্ষা নিশ্চিত করবে, যথাযথ আবহাওয়ার পূর্বাভাস এবং টেল-মেডিসিনের সাথে সংযোগ স্থাপনের মাধ্যমে এটিকে ভাল চিকিত্সা নিশ্চিত করবে।

শ্রী মোদী উল্লেখ করেছেন, "যখন আমরা হা মেলাবো এবং পারস্পরিক জ্ঞান, প্রযুক্তি এবং প্রবৃদ্ধি শেয়ার করবো, তখন আমরা আমাদের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি বাড়িয়ে তুলতে পারবো"।