শেয়ার
 
Comments

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী আজ (৮ই মার্চ) উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদ সফর করেন এবং সেখানে একাধিক উন্নয়নমূলক প্রকল্পের সূচনা করেন। তিনি হিন্ডন বিমানবন্দরের সিভিল টার্মিনাল ভবনের সূচনা উপলক্ষে ফলকের আবরণ উন্মোচন করেন। এরপর, শ্রী মোদী সিকান্দরপুর সফর করেন এবং সেখানে দিল্লি-গাজিয়াবাদ-মিরাট আঞ্চলিক দ্রুতগতিসম্পন্ন পরিবহণ ব্যবস্থার শিলান্যাস করেন। এরপর তিনি বিবিধ উন্নয়নমূলক প্রকল্পের সূচনা এবং সরকারি প্রকল্পগুলির সুবিধাভোগীদের শংসাপত্র প্রদান করেন।

শ্রী মোদী গাজিয়াবাদে শহীদ স্থল (নিউ বাস আড্ডা) মেট্রো স্টেশন সফর করেন এবং সেখান থেকে দিলশাদ গার্ডেন পর্যন্ত মেট্রো রেল পরিষেবার যাত্রা সূচনা করেন। তিনি মেট্রোও সফর করেন।

 

গাজিয়াবাদের সিকান্দরপুরে এক বিশাল জনসভায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, গাজিয়াবাদ এখন তিনটি ‘সি’ হিসেবে পরিচিত। এগুলি হল – ‘কানেক্টিভিটি’ বা যোগাযোগ; ‘ক্লিনলিনেস’ বা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা এবং ‘ক্যাপিটাল’ বা মূলধন। এ প্রসঙ্গে শ্রী মোদী গাজিয়াবাদে ক্রমবর্ধমান সড়ক ও মেট্রো যোগাযোগ ব্যবস্থার কথা উল্লেখ করেন। স্বচ্ছ সর্বেক্ষণ ক্রমতালিকায় এই শহরটি ত্রয়োদশতম স্থানে রয়েছে বলে উল্লেখ করে শ্রী মোদী বলেন, গাজিয়াবাদ উত্তরপ্রদেশের নতুন বাণিজ্য তালুক হয়ে উঠছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, হিন্ডন বিমানবন্দরের নতুন অসামরিক টার্মিনাল ভবনটি নির্মিত হওয়ার ফলে গাজিয়াবাদের মানুষ এখন দিল্লি থেকে বিমানের পরিবর্তে নিজের শহর থেকে অন্যত্র বিমানে যাত্রা করতে পারবেন। তিনি আর বলেন, অতি অল্প সময়ের মধ্যে এই সিভিল টার্মিনালের নির্মাণ কেন্দ্রীয় সরকারের আন্তরিকতা এবং কর্মসংস্কৃতিকেই প্রতিফলিত করে। তিনি জানান, শহীদ স্থল থেকে মেট্রো পরিষেবার নতুন শাখার সূচনার ফলে উত্তরপ্রদেশ ও দিল্লির মধ্যে মেট্রো সফরকারীদের সময় সাশ্রয় হবে।

 

দিল্লি-গাজিয়াবাদ-মিরাট আঞ্চলিক দ্রুতগতিসম্পন্ন পরিবহণ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে ৩০ হাজার কোটি টাকা খরচ করা হবে। ভারতে এ ধরণের পরিবহণ ব্যবস্থা এই প্রথম গড়ে উঠতে চলেছে। নির্মাণ কাজ শেষ হলে দিল্লি এবং মিরাটের মধ্যে যাত্রার সময় কমবে। গাজিয়াবাদে যে আধুনিক পরিকাঠামো গড়ে তোলা হচ্ছে, তার দরুণ শহর ও সংলগ্ন এলাকার মানুষের জীবনযাপনের মানোন্নয়ন ঘটবে। এ ধরণের আধুনিক পরিকাঠামো সারা দেশেই নির্মাণ করা হচ্ছে বলেও প্রধানমন্ত্রী জানান।

শ্রী মোদী ‘প্রধানমন্ত্রী শ্রমযোগী মান-ধন যোজনা’র সুফল সম্পর্কে বলতে গিয়ে জানান, এই প্রকল্পের ফলে অপ্রচলিত ক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত শ্রমিকরা বার্ধক্যে আর্থিক নিরাপত্তা পাবেন। তিনি আরও জানান, ‘প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি যোজনা’র আওতায় ২ কোটিরও বেশি কৃষক তাঁদের প্রথম কিস্তির অর্থ ইতিমধ্যেই পেয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা, আয়ুষ্মান ভারত, পিএম-কিষাণ, পিএম-শ্রমযোগী মান-ধন যোজনা প্রভৃতি কর্মসূচির মাধ্যমে তাঁর সরকার অসম্ভবকে সম্ভব করে তুলছে।

ডোনেশন
Explore More
আমাদের ‘চলতা হ্যায়’ মানসিকতা ছেড়ে ‘বদল সাকতা হ্যায়’ চিন্তায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

জনপ্রিয় ভাষণ

আমাদের ‘চলতা হ্যায়’ মানসিকতা ছেড়ে ‘বদল সাকতা হ্যায়’ চিন্তায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
‘Modi Should Retain Power, Or Things Would Nosedive’: L&T Chairman Describes 2019 Election As Modi Vs All

Media Coverage

‘Modi Should Retain Power, Or Things Would Nosedive’: L&T Chairman Describes 2019 Election As Modi Vs All
...

Nm on the go

Always be the first to hear from the PM. Get the App Now!
...
সোশ্যাল মিডিয়া কর্নার 18 মে 2019
May 18, 2019
শেয়ার
 
Comments

PM Narendra Modi visits Kedarnath Temple and takes stock of the development projects

Citizens praise efforts of the Modi Govt. to deliver Good Governance