শেয়ার
 
Comments

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী আজ আইআইটি মাদ্রাজে দীর্ঘ ৩৬ ঘন্টা ধরে আয়োজিত সিঙ্গাপুর – ইন্ডিয়া হ্যাকাথনের বিজয়ীদের পুরস্কৃত করেন।

সিঙ্গাপুর সরকার, ভারত সরকার, আইআইটি মাদ্রাজ এবং সিঙ্গাপুরের নানইয়ং টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটির পক্ষ থেকে যৌথভাবে আয়োজিত এটি দ্বিতীয় হ্যাকাথন।

এ ধরনের প্রথম হ্যাকাথনটি প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর অনুপ্রেরণায় গত বছর সিঙ্গাপুরের নানইয়ং টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটিতে আয়োজন করা হয়েছিল।

অনুষ্ঠানে ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষক সমাজের উদ্দেশে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এই হ্যাকাথনে বিজয়ীদের অভিনন্দন জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, হ্যাকাথনের বিজয়ীদের আমি অভিনন্দন জানাই। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রত্যেক বন্ধুকে আমার অভিনন্দন, বিশেষ করে আমার প্রিয় ছাত্রছাত্রীদের। সমস্যার সম্মুখীন হওয়ার ক্ষেত্রে ছাত্রছাত্রীদের আন্তরিক ইচ্ছা, কার্যকর সমাধানসূত্র খুঁজে বের করা, এদের উৎসাহ ও উদ্দীপনা কোনও একটি প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হওয়ার তুলনায় অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, স্টার্ট আপ অনুকূল বাতাবরণ গড়ে তোলার দিক থেকে ভারত বিশ্বের অগ্রণী তিনটি দেশের মধ্যে রয়েছে। বিগত পাঁচ বছরে ভারতে উদ্ভাবন ও স্টার্ট আপ বা নতুন শিল্প স্থাপনে সর্বাধিক অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। অটল উদ্ভাবন মিশন, প্রধানমন্ত্রী গবেষণা ফেলোশিপ, স্টার্ট আপ ইন্ডিয়া অভিযানের মতো কর্মসূচিগুলির একবিংশ শতাব্দীর ভারতের ভিত্তি। একবিংশ শতাব্দীর ভারতের লক্ষ্য হ’ল – উদ্ভাবন সংস্কৃতির প্রসার ঘটানো। আমরা এখন মেশিন লার্নিং, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এবং ব্লক চেনের মতো আধুনিক প্রযুক্তির সুযোগ-সুবিধাগুলি ছাত্রছাত্রীদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে কাজ করছে। বিদ্যালয় স্তর থেকে উচ্চ শিক্ষা ক্ষেত্রে গবেষণামূলক কাজকর্ম পর্যন্ত আমরা এমন এক অনুকূল বাতাবরণ গড়ে তোলার চেষ্টা করছি, যা উদ্ভাবনের সহায়ক।

ভারত আজ যে সমস্ত সমস্যার সম্মুখীন, তার সহজ সমাধানসূত্র খুঁজে বের করতে ছাত্রছাত্রীদের পরামর্শ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভারত সমগ্র বিশ্বকে, বিশেষ করে দরিদ্রতম রাষ্ট্রগুলিকে সমাধানসূত্র দিতে আগ্রহী।

আমরা উদ্ভাবন ও গবেষণাধর্মী প্রতিষ্ঠান স্থাপনে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছি দুটি কারণে। প্রথমটি হ’ল – সহজে জীবনযাপনের লক্ষ্যে ভারতের সমস্যাগুলি নিরসনে সহজ সমাধানসূত্র খুঁজে বের করা। দ্বিতীয়ত, আমরা ভারতেই এমন সমাধানসূত্র খুঁজে বের করতে চাই, যা সমগ্র বিশ্বের স্বার্থে কার্যকরি হবে। বিশ্বের সমস্যায় ভারতের সমাধানসূত্র – এটাই আমাদের মূল উদ্দেশ্য ও অঙ্গীকার। আমরা ব্যয়সাশ্রয়ী দেশীয় সমাধানসূত্রগুলি দরিদ্রতম রাষ্ট্রগুলিকে দিতে আগ্রহী। দরিদ্রতম ও পিছিয়ে পড়া রাষ্ট্রগুলিকে ভারতের সমাধানসূত্র দিয়ে সাহায্যে প্রস্তুত।

প্রধানমন্ত্রী এর পর, আইআইটি মাদ্রাজের হীরক জয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠান এবং দীক্ষান্ত অনুষ্ঠানেও যোগ দেবেন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

Click here to read full text speech

ডোনেশন
Explore More
আমাদের ‘চলতা হ্যায়’ মানসিকতা ছেড়ে ‘বদল সাকতা হ্যায়’ চিন্তায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

জনপ্রিয় ভাষণ

আমাদের ‘চলতা হ্যায়’ মানসিকতা ছেড়ে ‘বদল সাকতা হ্যায়’ চিন্তায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
We look forward to productive Parliament session: PM Modi after all-party meeting

Media Coverage

We look forward to productive Parliament session: PM Modi after all-party meeting
...

Nm on the go

Always be the first to hear from the PM. Get the App Now!
...
সোশ্যাল মিডিয়া কর্নার 16 নভেম্বর 2019
November 16, 2019
শেয়ার
 
Comments

PM Shram Yogi Mandhan Yojana gets tremendous response; Over 17.68 Lakh Women across the nation apply for the same

Signifying India’s rising financial capacity, the Forex Reserves reach $448 Billion

A New India on the rise under the Modi Govt.