শেয়ার
 
Comments
প্রধানমন্ত্রী দাহোদে আদিজাতি মহা সম্মেলনে যোগ দেবেন, সেই সঙ্গে ২২ হাজার কোটি টাকার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পের সূচনা ও শিলান্যাস করবেন
প্রধানমন্ত্রী জামনগরে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরম্পরাগত আন্তর্জাতিক চিকিৎসা কেন্দ্রের শিলান্যাস করবেন; তিনি গান্ধীনগরে বিশ্ব আয়ুষ বিনিয়োগ ও উদ্ভাবন শীর্ষ সম্মেলন উদ্বোধন করবেন
প্রধানমন্ত্রী বনসকাঁথায় দিয়োদারে বনস ডেয়ারি সঙ্কুলে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্প জাতির উদ্দেশে উৎসর্গ ও শিলান্যাস করবেন
প্রধানমন্ত্রী গান্ধীনগরে বিদ্যালয়গুলির কম্যান্ড অ্যান্ড কন্ট্রোল সেন্টার পরিদর্শন করবেন
প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী আগামী ১৮ – ২০ এপ্রিল গুজরাট সফর করবেন। ১৮ তারিখ তিনি সন্ধে ৬টা নাগাদ গান্ধীনগরে বিদ্যালয়গুলির কম্যান্ড অ্যান্ড কন্ট্রোল সেন্টার পরিদর্শনে যাবেন। পরদিন অর্থাৎ ১৯ তারিখ সকাল ৯টা ৪০ মিনিট নাগাদ তিনি বনসকাঁথার দিয়োদারে বনস ডেয়ারি সঙ্কুলে একাধিক উন্নয়নমূলক প্রকল্প জাতির উদ্দেশে উৎসর্গ ও শিলান্যাস করবেন। সেদিনই তিনি বেলা ৩টে ৩০ মিনিট নাগাদ জামনগরে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আন্তর্জাতিক পরম্পরাগত চিকিৎসা কেন্দ্রের শিলান্যাস করবেন। আগামী ২০ এপ্রিল বেলা সাড়ে ১০টা নাগাদ প্রধানমন্ত্রী গান্ধীনগরে বিশ্ব আয়ুষ বিনিয়োগ ও শীর্ষ সম্মেলনের সূচনা করবেন। এরপর বেলা তিনটে ৩০ মিনিট নাগাদ শ্রী মোদী দাহোদে আদিজাতি মহাসম্মেলন উদ্বোধন তথা বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পের সূচনা ও শিলান্যাস করবেন।
 
বিদ্যালয় কম্যান্ড ও কন্ট্রোল সেন্টারে প্রধানমন্ত্রী :-
 
প্রধানমন্ত্রী আগামী ১৮ই এপ্রিল গান্ধীনগরে সন্ধে ৬টা নাগাদ বিদ্যালয়গুলির কম্যান্ড ও কন্ট্রোল সেন্টার পরিদর্শন করবেন। এই কেন্দ্রটি প্রতি বছর ৫০০ কোটির বেশি ডেটা সংগ্রহ করে। সংগৃহীত এই ডেটা বা তথ্য ডেটা অ্যানালিটিক্স, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও মেশিন লার্নিং পদ্ধতির মাধ্যমে বিশ্লেষণ করে দেখা হয়। ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে সার্বিক শিক্ষা গ্রহণের গুণমান বাড়াতেই এই কেন্দ্রটি কাজ করে থাকে। এছাড়াও এই কেন্দ্রটি শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্র-ছাত্রীদের অনলাইনে দৈনিক উপস্থিতিতে নজরদারি তথা ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষা গ্রহণের মান নির্দিষ্ট সময় অন্তর মূল্যায়ন এবং এই সংক্রান্ত তথ্য একত্রিত করে থাকে। বিশ্ব ব্যাঙ্ক এই কম্যান্ড ও কন্ট্রোল সেন্টারটিকে সেরা আন্তর্জাতিক পন্থা-পদ্ধতি অনুসরণ করার স্বীকৃতি দিয়েছে। এমনকি, এই কেন্দ্রটির বিভিন্ন কাজকর্ম দেখার জন্য বিভিন্ন দেশকে আমন্ত্রণ করা হয়েছে। 
 
বনসকাঁথায় দিয়োদারে বনস ডেয়ারি সঙ্কুলে প্রধানমন্ত্রী :-
 
প্রধানমন্ত্রী আগামী ১৯ এপ্রিল সকাল ৯টা ৪০ মিনিট নাগাদ বনসকাঁথা জেলার দিয়োদারে একটি নতুন ডেয়ারি কমপ্লেক্স ও আলু প্রক্রিয়াকরণ কেন্দ্র জাতির উদ্দেশে উৎসর্গ করবেন। এগুলি নির্মাণে খরচ হয়েছে ৬০০ কোটি টাকার বেশি। উল্লেখ করা যেতে পারে, নবনির্মিত এই ডেয়ারি কমপ্লেক্সটি গ্রীণফিল্ড প্রকল্প। এই ডেয়ারি কমপ্লেক্সে প্রতিদিন ৩০ লক্ষ লিটার দুধ প্রক্রিয়াকরণ, প্রায় ৮০ টন মাখন উৎপাদন, এক লক্ষ লিটার আইসক্রিম উৎপাদন, ২০ টন ঘন দুধ উৎপাদন এবং ছয় টন চকলেট উৎপাদন হবে। আলু প্রক্রিয়াকরণ কেন্দ্রটিতে বিভিন্ন ধরণের প্রক্রিয়াজাত খাদ্য সামগ্রী, যেমন – ফ্রেঞ্চ ফ্রাই, পটাটো চিপস, আলু টিক্কি, প্যাটিজ প্রভৃতি তৈরি হবে। এমনকি, অধিকাংশ প্রক্রিয়াজাত খাদ্য পণ্য রপ্তানিও করা হবে। এই কেন্দ্রটি স্থানীয় কৃষকদের ক্ষমতায়ন এবং এই অঞ্চলে গ্রামীণ অর্থনীতি বিকাশে সাহায্য করবে। 
 
প্রধানমন্ত্রী শ্রী মোদী বনস কমিউনিটি রেডিও স্টেশন জাতির উদ্দেশে উৎসর্গ করবেন। কৃষিকাজ ও গবাদি পশুপালন সম্পর্কিত বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রচারের জন্য এই রেডিও স্টেশনটি গড়ে তোলা হয়েছে। ১ হাজার ৭০০টির বেশি গ্রামের ৫ লক্ষের বেশি কৃষক এই রেডিও স্টেশন থেকে উপকৃত হবেন বলে আশাকরা হচ্ছে। 
 
প্রধানমন্ত্রী পালানপুরে বনস ডেয়ারি প্ল্যান্টে চিজ এবং হুই পাউডার উৎপাদনের জন্য সম্প্রসারিত কেন্দ্রটি জাতির উদ্দেশে উৎসর্গ করবেন। এরপর তিনি গুজরাটের দামায় জৈব সার ও জৈব গ্যাস প্ল্যান্ট জাতির উদ্দেশ উৎসর্গ করবেন। 
 
প্রধানমন্ত্রী এরপর খিমানা, রতনপুরা – ভিলডি, রাধানপুর এবং থাওয়ারে ১০০ টন উৎপাদন ক্ষমতা সম্পন্ন চারটি গোবর গ্যাস প্ল্যান্টের শিলান্যাস করবেন। 
 
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরম্পরাগত আন্তর্জাতিক চিকিৎসা কেন্দ্র :
 
প্রধানমন্ত্রী আগামী ১৯ এপ্রিল বেলা তিনটে ৩০ মিনিটে জামনগরে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরম্পরাগত আন্তর্জাতিক চিকিৎসা কেন্দ্রের শিলান্যাস করবেন। এই অনুষ্ঠানে মরিসাসের প্রধানমন্ত্রী মিঃ প্রবিন্দ কুমার জগন্নাথ এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (হু) মহানির্দেশক টেড্রস গেব্রেইসাস উপস্থিত থাকবেন। এটি সারা বিশ্বে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এধরণের একমাত্র কেন্দ্র হয়ে উঠছে। এই কেন্দ্রটি সারা বিশ্বে রোগী কল্যাণের ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক হাব হয়ে উঠবে। 
 
বিশ্ব আয়ুষ বিনিয়োগ ও উদ্ভাবন শীর্ষ সম্মেলন :
 
বিশ্ব আয়ুষ বিনিয়োগ ও উদ্ভাবন শীর্ষ সম্মেলন গান্ধীনগরে মহাত্মা মন্দিরে আয়োজন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শ্রী মোদী আগামী ২০ এপ্রিল বেলা সাড়ে ১০টা নাগাদ এই সম্মেলন উদ্বোধন করবেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মরিসাসের প্রধানমন্ত্রী এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহানির্দেশক উপস্থিত থাকবেন। তিন দিনের এই সম্মেলনে প্রায় ৯০ জন বিশিষ্ট বক্তা এবং ১০০ জন প্রদর্শক পাঁচটি পূর্ণাঙ্গ সভা, আটটি গোল টেবিল বৈঠক, ছয়টি কর্মশিবির এবং দুটি সেমিনারে অংশ নেবেন। এই সম্মেলন বিনিয়োগের সম্ভাবনা খুঁজে বের করার পাশাপাশি উদ্ভাবন, গবেষণা ও উন্নয়ন, স্টার্ট আপ ক্ষেত্রের অনুকূল পরিবেশ এবং রোগী কল্যাণের মত গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রগুলির অগ্রগতিতে বড় ভূমিকা নেবে। শিল্পপতি, শিক্ষাবিদ ও বিশেষজ্ঞদের একমঞ্চে নিয়ে এসে ভবিষ্যৎ সহযোগিতা গড়ে তোলার ক্ষেত্রে এই সম্মেলন গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে।  
 
দাহোদে আদিজাতি মহাসম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী :
 
প্রধানমন্ত্রী আগামী ২০ এপ্রিল বেলা তিনটে ৩০ মিনিট নাগাদ দাহোদে আদি জাতি মহাসম্মেলনে যোগ দেবেন। এই সম্মেলনে যোগ দিয়ে তিনি ২২ হাজার কোটি টাকার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাস করবেন। দুই লক্ষের বেশি মানুষ এই সম্মেলনে যোগ দেবেন বলে মনে করা হচ্ছে। 
 
প্রধানমন্ত্রী ১ হাজার ৪০০ কোটি টাকার বেশি বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন। নর্মদা নদী অববাহিকায় দাহোদ জেলার দক্ষিণাংশের জন্য যে আঞ্চলিক জল সরবরাহ প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে, সেটিরও তিনি সূচনা করবেন। এই প্রকল্প খাতে খরচ হয়েছে ৮৪০ কোটি টাকা। দাহোদ জেলায় প্রায় ২৮০টি গ্রামে এবং দেবগড় বাড়িয়া শহরে এই প্রকল্পটি থেকে জল সরবরাহ করা হবে। প্রধানমন্ত্রী দাহোদ স্মার্টসিটিতে পাঁচটি প্রকল্পের সূচনা করবেন। এই প্রকল্প খাতে খরচ হয়েছে ৩৩৫ কোটি টাকা। এরমধ্যে রয়েছে ইন্টিগ্রেডেট কম্যান্ড অ্যান্ড কন্ট্রোল সেন্টার ভবন, বন্যার জল নিষ্কাশন ব্যবস্থা, পয়ঃপ্রণালী, কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা এবং বর্ষার জল সংরক্ষণ ব্যবস্থা। 
 
প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার মাধ্যমে পঞ্চমহল ও দাহোদ জেলার ১০ হাজার আদিবাসীকে ১২০ কোটি টাকা সাহায্য দেওয়া হবে। এরপর প্রধানমন্ত্রী ৬৬ কিলোভোল্ট ক্ষমতাসম্পন্ন ঘোড়িয়া সাবস্টেশন, পঞ্চায়েত ভবন, অঙ্গনওয়াড়ি প্রভৃতি কেন্দ্রের সূচনা করবেন। 
 
প্রধানমন্ত্রী দাহোদে রেলের উৎপাদন ইউনিটে নয় হাজার অশ্ব ক্ষমতা সম্পন্ন ইলেক্ট্রিক ইঞ্জিন তৈরির শিলান্যাস করবেন। এই প্রকল্প খাতে খরচ ধরা হয়েছে প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকা। উল্লেখ করা যেতে পারে, বাষ্পচালিত রেল ইঞ্জিনের সংস্কার ও মেরামতের জন্য ১৯২৬-এ রেলের দাহোদ ওয়ার্কশপ স্থাপিত হয়েছিল। এই ওয়ার্কশপটিকে বৈদ্যুতিন রেলইঞ্জিন নির্মাণের উপযোগী করে তোলা হবে। এজন্য প্রয়োজনীয় পরিকাঠামোগত মানোন্নয়ন করা হয়েছে। এই কেন্দ্রটি চালু হলে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে প্রায় ১০ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে। প্রধানমন্ত্রী রাজ্য সরকারের প্রায় ৫৫০ কোটি টাকার বিভিন্ন প্রকল্পের শিলান্যাস করবেন। এরমধ্যে রয়েছে, ৩০০ কোটি টাকার জল সরবরাহ প্রকল্প, প্রায় ১৭৫ কোটি টাকার দাহোদ স্মার্টসিটি প্রকল্প, দুধিমতি নদীর সঙ্গে যুক্ত একাধিক প্রকল্প, ঘোড়িয়ায় জিইটিসিও-এর সাবস্টেশন প্রভৃতি।  
Explore More
৭৬তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে লালকেল্লার প্রাকার থেকে প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর জাতির উদ্দেশে ভাষণের বঙ্গানুবাদ

জনপ্রিয় ভাষণ

৭৬তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে লালকেল্লার প্রাকার থেকে প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর জাতির উদ্দেশে ভাষণের বঙ্গানুবাদ
Core sector growth at three-month high of 7.4% in December: Govt data

Media Coverage

Core sector growth at three-month high of 7.4% in December: Govt data
...

Nm on the go

Always be the first to hear from the PM. Get the App Now!
...
PM to participate in the Krishnaguru Eknaam Akhanda Kirtan for World Peace on 3rd February
February 01, 2023
শেয়ার
 
Comments

Prime Minister Shri Narendra Modi will participate in the Krishnaguru Eknaam Akhanda Kirtan for World Peace, being held at Krishnaguru Sevashram at Barpeta, Assam, on 3rd February 2023 at 4:30 PM via video conferencing. Prime Minister will also address the devotees of Krishnaguru Sevashram.

Paramguru Krishnaguru Ishwar established the Krishnaguru Sevashram in the year 1974, at village Nasatra, Barpeta Assam. He is the ninth descendant of Mahavaishnab Manohardeva, who was the follower of the great Vaishnavite saint Shri Shankardeva. Krishnaguru Eknaam Akhanda Kirtan for World Peace is a month-long kirtan being held from 6th January at Krishnaguru Sevashram.