“2024 General Election results will be beyond barriers”
“Tide that arose during independence brought passion and sense of togetherness amongst the masses and broke many barriers”
“Success of Chandrayaan 3 instills a feeling of pride and self-confidence among every citizen and inspires them to march forward in every sector”
“Today, every Indian is brimming with self-confidence”
“Jan Dhan bank accounts became a medium to break the mental barriers amongst the poor and reinvigorate their pride and self-respect”
“Government has not only transformed lives but also helped the poor in overcoming poverty”
“Common citizens feel empowered and encouraged today”
“Pace and scale of development of today’s India is a sign of its success”
“Abrogation of Article 370 in Jammu & Kashmir has paved the way for progress and peace”
“India has made the journey from record scams to record exports”
“Be it startups, sports, space or technology, the middle class is moving forward at a fast pace in India's development journey”
“Neo-middle class are giving momentum to the consumption growth of the country”
“Today, from the poorest of the poor to the world's richest, they have started believing that this is India's time”

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী আজ হিন্দুস্থান টাইমস্ লিডারশিপ সামিট – এ ভাষণ দেন। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০১৪’য় যখন এই সরকার ক্ষমতায় এসেছিল, তখন এই আলোচনাসভার বিষয়বস্তু ছিল ‘ভারতের পুনর্গঠন’। ২০১৯ – এ এই সরকার পুনর্নির্বাচিত হওয়ার সময় ‘উন্নততর ভবিষ্যতের জন্য আলাপচারিতা’ – বিষয়টি ছিল আলোচ্য। এখন ২০২৩ – এ দেশ যখন পরবর্তী সাধারণ নির্বাচনের দিকে এগোচ্ছে, সেই সময় ‘সীমানা অতিক্রম’ – এই বিষয়টিকে বেছে নেওয়া হয়েছে – যা খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। ২০২৪ – এর নির্বাচনে এই সরকার সব নজির ভেঙে দিয়ে ক্ষমতায় আসবে, যা হয়ে উঠবে সীমানা পরবর্তী পর্বের প্রতিফলন। 

 

উন্নত ও সমৃদ্ধ এক ভারত এই ভিত্তির উপরই গড়ে উঠবে বলে প্রধানমন্ত্রী মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, দীর্ঘ সময় ধরে একের পর এক বাধার সম্মুখীন হয়েছে ভারত। দীর্ঘ দিনের দাসত্ব মানুষের মনোভাবে অত্যন্ত নেতিবাচক প্রভাব এনে দিয়েছিল। স্বাধীনতা সংগ্রামের সময় ঐক্যের বোধ অনেক বাধাকেই দূরে সরিয়ে দিয়েছে। আশা ছিল, স্বাধীনতার পরও ঐ প্রবণতা বজায় থাকবে। দুর্ভাগ্যের বিষয় তা হয়নি। বহু সমস্যা এবং প্রতিবন্ধকতাকে অনেক বড় করে দেখানোর একটা মানসিকতা তৈরি হয়েছে দীর্ঘ দিন ধরে।

২০১৪ সালের পর নতুন উদ্যমে যাবতীয় বাধাবিঘ্ন অতিক্রম করে এগিয়ে চলেছে ভারত। চাঁদের যে অংশে ভারত পৌঁছেছে, সেখানে আগে যেতে পারেনি কেউই। ডিজিটাল লেনদেনের প্রশ্নে ভারতের স্থান এখন প্রথম। মোবাইল উৎপাদনে আমাদের দেশ তালিকায় একেবারে উপরে। দক্ষ যুবা শক্তি তৈরি করছে একের পর এক স্টার্টআপ। জি-২০’র মতো মঞ্চে ভারতের পতাকা উড়ছে গর্বিত ভঙ্গিমায়। 

পূর্ববর্তী জমানায় নেতিবাচক ও দুর্বল মানসিকতাই দেশের সামনে সবচেয়ে বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল বলে প্রধানমন্ত্রী মন্তব্য করেন। দুর্নীতি ও অদক্ষতা সেই সময় শিকড় পর্যন্ত পৌঁছে ছিল। মহাত্মা গান্ধীর ডান্ডি অভিযান একসময় যেভাবে আসমুদ্র হিমাচল মানুষকে জাগিয়ে তুলেছিল, ঠিক তেমনই ভারতবাসীর মনে আত্মমর্যাদা এবং প্রত্যয়ের মনোভাব এনে দিয়েছে চন্দ্রযান-৩ এর সাফল্য। পরিচ্ছন্নতা অভিযানের সুবাদে মানুষের মধ্যে স্বাস্থ্য সচেতনতা অনেক বেড়েছে। খাদি পণ্যের বিক্রয় বিগত ১০ বছরে বেড়েছে তিনগুণ। জন ধন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট প্রান্তিক মানুষের ক্ষমতায়নে সহায়ক হয়েছে। এখন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থাকার বিষয়টি শুধুমাত্র ধনী ও শিক্ষিতদের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। ঠান্ডাঘরে বসে যাঁরা রাশিবিদ্যা নিয়েই ব্যস্ত থাকেন, তাঁদের পক্ষে সাধারণ মানুষের এই মনস্তাত্ত্বিক পরিবর্তন বোঝা সম্ভব নয়। 

 

একের পর এক সাফল্যের খতিয়ান তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম উৎপাদন, সীমান্ত পারের সন্ত্রাস মোকাবিলা, জলবায়ু পরিবর্তন রোধে নেতৃস্থানীয় ভূমিকা নেওয়ার পাশাপাশি ক্রীড়া ক্ষেত্রে নজির বিহীনভাবে এগিয়ে চলেছে দেশ। তাঁর সরকারের অগ্রাধিকার হ’ল দরিদ্রের ক্ষমতায়ন - একথা পুনরায় উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিগত পাঁচ বছরে ১৩ কোটি মানুষ দারিদ্র্য সীমা অতিক্রম করেছেন। 

 

শ্রী মোদী আরও বলেন, আমাদের নীতি প্রণেতারা আগেকার একাধিক অবাঞ্ছিত প্রবণতা থেকে এখন মুক্ত। অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক দুটি ক্ষেত্রেই উৎকর্ষ বিধানে সমন্বিত পন্থায় এগোনো সম্ভব হয়েছে এখন। এসবের ফলে কোভিড অতিমারীর ধাক্কা অনেক সহজে সামলে নিতে পেরেছে আমাদের দেশ। 

 

সর্বাত্মক উন্নয়নের প্রশ্নে তাঁর সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী পণ্য ও পরিষেবা করের প্রবর্তন, সংবিধানের ৩৭০ ধারা লোপ, নারী শক্তি বন্দন অধিনিয়ম – এর প্রসঙ্গ বিশেষভাবে উল্লেখ করেন। ২০১৩’য় দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে যা লেখা হ’ত, সেই ছবি এখন সম্পূর্ণ পাল্টে গেছে বলে প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্য করেন। খুব শীঘ্রই এই দেশ বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম অর্থনীতি হয়ে উঠবে বলে পুনরায় আশা ব্যক্ত করেন। 

 

পরিশেষে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অমৃতকালে ভারত এগিয়ে চলেছে ২০৪৭ সাল নাগাদ উন্নত দেশগুলির তালিকাভুক্ত হওয়ার লক্ষ্যকে সামনে রেখে। এই পথেও যাবতীয় বাধাবিপত্তি অতিক্রান্ত করে স্বপ্নের ভারত যখন আত্মপ্রকাশ করবে, তখন ২০৪৭ সালে আমরা আলোচনা করবো যে বিষয়গুলি নিয়ে, তা হ’ল – বিকশিত দেশ, এরপর? 

 

সম্পূর্ণ ভাষণ পড়তে এখানে ক্লিক করুন

Explore More
ভারতের ৭৭তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে লালকেল্লার প্রাকার থেকে দেশবাসীর উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ

জনপ্রিয় ভাষণ

ভারতের ৭৭তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে লালকেল্লার প্রাকার থেকে দেশবাসীর উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ
iPhone exports from India nearly double to $12.1 billion in FY24: Report

Media Coverage

iPhone exports from India nearly double to $12.1 billion in FY24: Report
NM on the go

Nm on the go

Always be the first to hear from the PM. Get the App Now!
...
সোশ্যাল মিডিয়া কর্নার 17 এপ্রিল 2024
April 17, 2024

Holistic Development under the Leadership of PM Modi