শেয়ার
 
Comments

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী আজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে, বাজেটে বিনিয়োগ ও জনসম্পত্তি ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন বিষয়ক ওয়েবিনারে বক্তব্য রেখেছেন।

ওয়েবিনারে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আরও উন্নয়নের লক্ষ্যে ভারত যাতে সঠিক পথে এগোতে পারে এবারের বাজেটে সেই দিকটি স্পষ্ট করা হয়েছে। দেশের উন্নয়নে বেসরকারী ক্ষেত্রের আরও বেশি অংশগ্রহণের ওপর এবারের বাজেটে জোর দেওয়া হয়েছে। বিলগ্নীকরণ এবং সম্পদের নগদীকরণের ওপর গুরুত্ব দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থাগুলি যখন কাজ শুরু করেছিল সেই সময়ের তুলনায় আজকের দিনে দেশের চাহিদার পরিবর্তন হয়েছে। জনসাধারণের অর্থ যাতে যথাযথভাবে ব্যবহৃত হয় সংস্কারের মূল উদ্দেশ্য সেটাই। বর্তমানে অনেক রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থা লাভের মুখ দেখছে না এবং তারা কর দাতাদের অর্থের সাহায্যে চলছে। এর ফলে অর্থনীতিতে অহেতুক বোঝার সৃষ্টি হচ্ছে। রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থাগুলি যেহেতু দীর্ঘদিন ধরে রয়েছে তাই সেগুলিকে পরিচালনা করতেই হবে এই মনোভাব সঠিক নয়। সরকারের দায়িত্ব হল দেশে বিভিন্ন উদ্যোগকে সম্পূর্ণভাবে সাহায্য করা এবং একই সঙ্গে সরকার কোনও ব্যবসা-বাণিজ্যের মধ্যে থাকবে না।

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সরকারের কাজ হল জনসাধারণের কল্যাণ এবং উন্নয়নমূলক বিভিন্ন প্রকল্পের বাস্তবায়ন ঘটানো। সরকার বিভিন্ন সীমাবদ্ধতার মধ্য দিয়ে কাজ করে। আর এহেন পরিস্থিতিতে বাণিজ্যিক সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ নয়। জনসাধারণের জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন ঘটানো আমাদের সরকারের উদ্দেশ্য। আবার একইসঙ্গে সাধারণ মানুষের জীবনে অযাচিত হস্তক্ষেপেরও প্রয়োজন নেই। মানুষের জীবনে সরকারের যতটা প্রয়োজন ততটাই থাকা উচিত। দেশে এমন অনেক সম্পদ রয়েছে যেগুলি কম ব্যবহৃত হয় অথবা ব্যবহার হয়ই না। এই বিষয়টির ওপর ভিত্তি করেই ন্যাশনাল অ্যাসেট মানিটাইজেশন পাইপলাইন ঘোষণা করা হয়েছে। ‘নগদীকরণ ও আধুনিকীকরণ’ মন্ত্রে সরকার কাজ করছে। যখন সরকার নগদীকরণের প্রক্রিয়া হাতে নিয়েছে, সেইসময় বেসরকারী সংস্থাগুলি এই শূন্যতাকে পূরণ করে। বেসরকারী ক্ষেত্র বিনিয়োগ নিয়ে আসে এবং আন্তর্জাতিক বিচারে সবথেকে ভালো ব্যবস্থাপনাও তার সঙ্গী হয়।

 

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, জন সম্পত্তির নগদীকরণের ফলে যে অর্থ হাতে আসে সেটি জনকল্যাণমূলক কাজে ব্যবহার করা যায়। বেসরকারীকরণের মধ্যে দিয়ে যুব সম্প্রদায়ের কাছে আরও কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হয়। কৌশলগত ক্ষেত্র ছাড়া সকল ক্ষেত্রের বেসরকারীকরণের জন্য সরকার অঙ্গীকারবদ্ধ। বিলগ্নীকরণ সংক্রান্ত একটি স্পষ্ট পরিকল্পনার খসড়া তৈরি করা হয়েছে। এর ফলে প্রতিটি ক্ষেত্রে নতুন নতুন বিনিয়োগের সুযোগ তৈরি হবে এবং প্রচুর কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সরকার এই লক্ষ্যেই এগিয়ে চলেছে। এই নীতিগুলির বাস্তবায়নের বিষয়ে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে এবং প্রতিযোগিতার জন্য একটি সঠিক প্রক্রিয়া গ্রহণ করতে হবে, কারণ স্থিতিশীল নীতির জন্য সেটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

সচিবদের নিয়ে ক্ষমতা সম্পন্ন একটি গোষ্ঠী তৈরি করা হয়েছে যারা বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলবেন এবং বিনিয়োগকারীদের সবরকমের সমস্যার সমাধান করবেন। ভারতে সহজে ব্যবসা করার পরিবেশের উন্নতির জন্য বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করতে হবে। বছরের পর বছর ধরে আমাদের সরকার ভারতকে বাণিজ্যের গুরুত্বপূর্ণ গন্তব্যের কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলার জন্য বিভিন্ন সংস্কার গ্রহণ করেছে। আজ ভারতে এক বাজার-এক কর ব্যবস্থা চালু হয়েছে। বিভিন্ন সংস্থার এদেশে ঢোকা এবং বেরনোর প্রক্রিয়া সহজ করা হয়েছে। নানা নিয়মাবলী সহজ-সরল করার পাশাপাশি জটিল বিষয়গুলিকে প্রত্যাহার করা হচ্ছে। একইভাবে ভারতীয় কর ব্যবস্থাকে সরলীকরণ ও স্বচ্ছ করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ নীতির বিষয়ে অভূতপূর্ব সংস্কার গ্রহণ করা হয়েছে। বিনিয়োগকারীদের আর্কষণের জন্য উৎপাদনভিত্তিক উৎসাহদায়ক ব্যবস্থার সূচনা করা হয়েছে। এর ফলে বিগত কয়েক মাসে রেকর্ড পরিমাণে প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ হয়েছে। আত্মনির্ভর ভারত অভিযানের জন্য আমরা আধুনিক পরিকাঠামো গড়ে তোলার কাজ দ্রুতভাবে করছি। একইসঙ্গে বিভিন্ন ক্ষেত্রের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি ঘটানো হচ্ছে। আগামী ৫ বছরে আমাদের পরিকাঠামোর উন্নয়ন ঘটাতে ন্যাশনাল ইনফ্রাসট্রাকচার পাইপলাইনের মাধ্যমে ১১১ লক্ষ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে। বিশ্বের বৃহত্তম তরুণ রাষ্ট্র সরকারের কাছ থেকেই শুধু প্রত্যাশা করেনা, বেসরকারী ক্ষেত্রের কাছেও তার প্রত্যাশা রয়েছে। এই উচ্চাকাঙ্খার ফলে ব্যবসা-বাণিজ্যে প্রচুর সুযোগ তৈরি হয়েছে আর আমাদের সেই সুযোগগুলিকে কাজে লাগাতে হবে।

Click here to read PM's speech

২০ বছরের সেবা ও সমর্পণের ২০টি ছবি
Explore More
আমাদের ‘চলতা হ্যায়’ মানসিকতা ছেড়ে ‘বদল সাকতা হ্যায়’ চিন্তায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

জনপ্রিয় ভাষণ

আমাদের ‘চলতা হ্যায়’ মানসিকতা ছেড়ে ‘বদল সাকতা হ্যায়’ চিন্তায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
How India is becoming self-reliant in health care

Media Coverage

How India is becoming self-reliant in health care
...

Nm on the go

Always be the first to hear from the PM. Get the App Now!
...
PM congratulates President Shavkat Mirziyoyev on his victory in election
October 26, 2021
শেয়ার
 
Comments

The Prime Minister, Shri Narendra Modi has congratulated President Shavkat Mirziyoyev on his victory in the election.

In a tweet, the Prime Minister said;

"Heartiest congratulations to President Shavkat Mirziyoyev on his victory in the election. I am confident that India-Uzbekistan strategic partnership will continue to strengthen in your second term. My best wishes to you and the friendly people of Uzbekistan."